সম্পদ বন্ধক রেখে লোন নেওয়ার নিয়ম

ব্যাংক লোন
Spread the love

জমি বন্ধক রেখে ব্যাংক লোন নেওয়ার নিয়ম

সম্পদ বন্ধক রেখে লোন নেওয়ার নিয়ম

আসুন, বন্ধক লোনের ব্যাপারে জেনে নেই

বন্ধক লোন নিতে হলে ব্যাংকে আপনার কোন সম্পত্তি জমা রেখে সেইটার বিনিময়ে লোন নিতে হয়। সম্পত্তিটা আপনার বাসা হতে পারে, আপনার জমি হতে পারে বা আপনার নামের কোন বিল্ডিং বা অফিস হতে পারে। বন্ধক লোন নেওয়াটা বেশি সুবিধার বলে আমি মনে করি কারণ আপনি যদি লোন পরিশোধ করতে না পারেন তবে ব্যাংক আপনার সম্পত্তিটা নিয়ে নিবে। আপনি প্রথমবার কোন জায়গা কিনছেন? তবে বন্ধক লোন নেওয়ায় ভালো বলে আমি মনে করি।

বন্ধক লোন নেওয়ার জন্য কি কি করতে হবেঃ

বন্ধক লোন সাধারণত আমাদের নিজেদের আর্থিক সচ্ছলতার জন্য নেওয়া কিন্তু সম্পত্তি কেনার ক্ষেত্রেও আমরা এই লোন নিতে পারি। এই লোন নেওয়ার সবচেয়ে বড় সুবিধাটা হচ্ছে, আপনি লোন পরিশোধ করার পর পুনরায় আপনার সম্পত্তিটা ব্যবহার করতে পারি। একবার লোনটা পরিশোধ হয়ে গেলেই আপনি আবার সম্পত্তিটা আপনার একমাত্র মালিক হয়ে যাবে।

ব্যাংক লোন
ব্যাংক লোন

আপনি বিভিন্ন কাজে এই লোন নিতে পারেন যেমন, আপনার ব্যবসায়িক উন্নয়নের জন্য, বাসা করার জন্য, ছেলেমেয়েকে উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানোর ক্ষেত্রে।

কি ধরনের সম্পত্তি আপনি বন্ধক রাখতে পারবেনঃ

আপনি আপনার যে কোন ধরনের সম্পত্তি বন্ধক রাখতে পারেন। আপনি চাইলে আপনার বসবাসকৃত বাসাটাও বন্ধক রাখতে পারেন আবার আপনার যে বাসাটা ভাড়া দেওয়া আছে ঐটা বন্ধক সম্পত্তি হিসেবে আপনি ব্যাংকে জমা দিতে পারবেন। আপনার নামে কোন বৈধ জায়গা থাকলে সেটাও বন্ধক রাখতে পারেন। কমার্শিয়াল এবং ইন্ডাস্ট্রিয়াল সম্পত্তি বা নির্মাণাধীন সম্পত্তি আপনি বন্ধক রাখতে পারেন।

সম্পত্তির বিনিময়ে আপনি কতখানি লোন পেতে পারেনঃ
সাধারণত সম্পত্তির মূল্যের ৫০%-৬০% লোন দেওয়া হয়। যদি আপনার সম্পত্তি অনেক দামি হয় তবে ব্যাংক আপনাকে সর্বোচ্চ ৭৫% লোন দিবে। মনে রাখবেন, ব্যাংক আপনার সম্পত্তি নিয়ে প্রতিনিয়ত যাচাই-বাছাই করবে, এর দাম সম্পর্কে ধারণা রাখবে।

বন্ধক লোনের ইন্টারেস্টঃ

বন্ধক লোনের ইন্টারেস্ট সাধারণত ১২%-১৫% এর বেশি হয় না যার কারণে এই লোন ব্যবস্থাটা সকলের খুব পছন্দসয় লোন ব্যবস্থা। অনেকেই পার্সোনাল লোন নেওয়ার থেকে বন্ধক লোনটাকে গ্রহণযোগ্য মনে করে এবং এতে ইন্টারেস্টের খরচটাও অনেক কম হয়। হোমলোনের পর বন্ধক লোনকে অনেক সস্তা লোন বলা হয়। সাধারণভাবে ১৫বছরের মধ্যে বন্ধক লোন শোধ করতে হয় তবে ব্যাংক চাইলে আপনি বেশি সময় পেতে পারেন।

ইন্টারেস্ট রেটের উপর ভিত্তি করে এই লোনকে ৩ভাগে ভাগ করা হয়ঃ
Fixed Rate Mortgage (FRM)
Adjustable Rate Mortgage (ARM)
Interest Only Mortgage Rate

এইগুলোর মধ্যে FRM এর ক্ষেত্রে আপনাকে একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ এবং মূল অর্থ ব্যাংকে দিতে হবে। ARM লোন বন্ধককৃত সম্পত্তির ইকোনমিক ও মার্কেট ভ্যালুর উপর নির্ভর করে। আপনি যদি Interest Only নেন তবে আপনাকে আগে ইন্টারেস্টের টাকাটা পরিশোধ করতে হবে তারপর লোনের বাকি টাকাটা দিতে হবে।

সাধারণত লোন নিলে একটা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আপনাকে মূল টাকার সাথে ইন্টারেস্টের টাকাটা পরিশোধ করতে হয়। কিন্তু বন্ধক লোনের ক্ষেত্রে আপনার সম্পত্তির কর এবং জীবনবীমার টাকাটাো যুক্ত হয়। জীবনবীমার খরচটা কেন যোগ হয়? জীবনবীমা আপনার সম্পত্তির সুরক্ষা নিশ্চিত করে এবং ক্ষতিপূরণে সাহায্য করে। এসব হিসাব দেখতে গেলে আবার বন্ধক লোনকে খুব ব্যয়বহুল মনে হয় কিন্তু আপনি যদি লোন নেওয়ার আগে বিষয়গুলো একটু ভালোভাবে খোঁজখবর নেন তাহলে দেখবেন, এইটা সবচেয়ে সুবিধাজনক।

বন্ধক লোন নেওয়ার জন্য কোন বিষয়গুলো জরুরিঃ
বন্ধক লোন পেতে হলে আপনাকে উপার্জনক্ষম হতে হবে। তবে আপনি উপার্জনক্ষম হলেও ২১ বছরের আগে এ লোন পাবেন না। এই ২টা মুখ্য বিষয় ছাড়াও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের দিকে খেয়াল রাখতে হয় বন্ধক লোন নেওয়ার সময়। সেগুলো নিচে দেওয়া হলঃ

Total Annual Income/ বাৎসরিক আয়
Income Tax Returns For The Last 3 Years/ গত ৩বছরে প্রদত্ত কর
Total Work Experience/ কর্ম অভিজ্ঞতা
Experience With The Current Company/ বর্তমান প্রতিষ্ঠানে কর্ম অভিজ্ঞতা
Property Value/ সম্পত্তির মূল্য
Existing Loans/Liabilities, If Any/ অপরিশোধিত লোন, যদি থাকে
Total Number Of Dependents/ সম্পত্তির পরিমাণ

ব্যাংকের উপর ভিত্তি করে গুরুত্বের বিষয়টা কম বেশি থাকতে পারে কিন্তু প্রতিটা ব্যাংকে এই বিষয়গুলোর উপর ভিত্তি করেই লোন দেয়।

বন্ধক লোন পেতে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রঃ
বন্ধক লোন নিতে আপনার বেতনের প্রমানপত্র, আপনি যদি ব্যবসায়ী হন তবে তার প্রমাণপত্র লাগবে। নিচে আপনাদের সুবিধার্থে একটা লিস্ট দেওয়া হলঃ

SALARIED
SELF-EMPLOYED
Completed loan application
Completed loan application
Passport size photographs
Passport size photographs
Proof of identity: voter card, driving license, pan card, employee id card
Proof of identity: voter card, driving license, pan card, employee id card
Proof of address: Aadhaar card, telephone bill, electricity bill
Proof of business; proof of education qualification
Your latest salary slips
Certified financial statement for last 3 years
Form 16 from last 3 years
Income tax return and profit and loss stamen from last 3 years
Bank statements of last 6 months
Bank statements of last 6 months
Processing fee cheque
Processing fee cheque

বন্ধক লোন, লোনের মধ্যে সেরা। এই লোনের সহজলভ্যতা লোনটিকে জনপ্রিয় করেছে। অল্প পরিমাণ ইন্টারেস্ট এবং লোন পরিশোধের জন্য পর্যাপ্ত সময় এই লোনের বিশেষত্ব। এই লোন নেওয়ার প্রক্রিয়াটা খুবই সহজ এবং লোন পরিশোধ করতে বেশি সময় নিলেও অনেক ব্যাংক এক্সট্রা চার্জ নেয়না। মূলকথা, এই লোনের ক্ষেত্রে মুখ্য বিষয় শুধুমাত্র আপনার সম্পত্তির মূল্য।

If you want to take a mortgage loan, you have to deposit some property in the bank and take a loan in return. The property could be your home, your land or a building or office in your name. I think it is more convenient to take a mortgage loan because if you cannot repay the loan, the bank will take your property. Which place are you buying for the first time? However, I think it is better to take a mortgage loan.

সম্পদ

What to do to get a mortgage loan:

Mortgage loans are usually taken out for our own financial well-being but we can also take out these loans when buying property. The biggest advantage of this loan is that you can use your property again after repaying the loan. Once the loan is repaid, you will be the sole owner of the property again.


Spread the love

Join The Discussion

0 thoughts on “সম্পদ বন্ধক রেখে লোন নেওয়ার নিয়ম”

  • Md aktarul islam

    Kon bank basa bondhok ney.?

    Reply

Compare listings

Compare